বেঁচে যাওয়া সেই শিশুর দায়িত্ব নিলেন ডিসি

October 23, 2020, 9:40 pm

বেঁচে যাওয়া সেই শিশুর দায়িত্ব নিলেন ডিসি

সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলায় চাঞ্চল্যকর স্বামী-স্ত্রীসহ একই পরিবারের চারজনকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। তবে নির্মম এই হত্যাকাণ্ড থেকে রেহাই পেয়েছে চার মাসের শিশু কন্যা মারিয়া। ওই শিশুর দায়িত্ব নিয়েছেন সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক (ডিসি) এসএম মোস্তফা কামাল।

জেলা প্রশাসক ওই শিশুর চিকিৎসা ও বেড়ে ওঠার সব ব্যয়ভার বহন করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। শিশুটি বর্তমানে উপজেলার হেলাতলা ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্য নাসিমা খাতুনের হেফাজতে রয়েছে।

জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল বলেন, ‘কলারোয়ায় নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার পরিবারের জীবিত একমাত্র চার মাসের কন্যা শিশুর দায়িত্ব নিয়ে আপাতত দেখাশোনার জন্য স্থানীয় মহিলা ইউপি সদস্য নাসিমা খাতুনের কাছে রাখা হয়েছে। তাকে সাময়িকভাবে দেখভাল করতে অনুরোধ করা হয়েছে। পরবর্তী সময়ে অভিভাবকরা দাবি করলে আইনানুগভাবে সমাধান করা হবে।’

বৃহস্পতিবার ভোর রাতে কলারোয়ার হেলাতলা ইউনিয়নের খলসি গ্রামের মৎস্য হ্যাচারি মালিক শাহিনুর রহমান (৪০), তার স্ত্রী সাবিনা খাতুন (৩০), ছেলে সিয়াম হোসেন মাহি (১০) ও মেয়ে তাসনিমকে (৭) কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করা হয়। তবে ৬ মাসের শিশু কন্যা মারিয়াকে কিছু করেনি হত্যাকারীরা।

এ ঘটনায় নিহত মাছ ব্যবসায়ী শাহিনুরের শাশুড়ি বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার ‘অজ্ঞাতনামা আসামি’ উল্লেখ করে কলারোয়া থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। বর্তমানে মামলাটি তদন্ত করছে সাতক্ষীরা সিআইডি পুলিশ।

Comments are closed.

এই বিভাগের আরও খবর


Share via
Copy link
Powered by Social Snap