বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবসে 'হিউম্যান এইড'র মানবন্ধন

May 27, 2020, 4:32 pm

বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবসে ‘হিউম্যান এইড’র মানবন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক : গতকাল সোমবার (১০ সেপ্টেম্বর) ছিল বিশ্ব আত্মহত্যা প্রতিরোধ দিবস। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও দিবসটি পালিত হয়েছে। এ বছর দিবসটির মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে- ‘আত্মহত্যা প্রতিরোধে একযোগে কাজ।’

দিবসটি উপলক্ষে সোমবার সকালে র‍্যালী ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান এইড এন্ড ট্রাস্ট ইন্টারন্যাশনাল। সংস্থার কার্যালয় থেকে র‍্যালী নিয়ে রাজধানীর তোপখানা রোড, পুরানা পল্টন সড়ক প্রদক্ষিণ করে প্রেস ক্লাবে এক মানবন্ধনের আয়োজন করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্থার ভাইস চেয়ারম্যান জনাব দেলোয়ার হোসেন।

দেলোয়ার হোসেন বলেন, আত্মহত্যার ভয়াবহতা বলে শেষ করা যায় না। আত্মহত্যা একটি সামাজিক ব্যাধি। এর দায়বদ্ধতা সমাজের সকলের, এর বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। আত্মহত্যা প্রতিরোধকারীদেরকেও তিনি সাধুবাদ জানান এবং আরও বড় পরিসরে সামাজিক, সাংগঠনিক ও রাষ্ট্রীয় ভাবে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহনের উৎসাহ যোগান। তিনি কবিতার ছন্দে বলেন, আত্মহত্যা নয়, সমাধান চাই। নতুন জীবন সাজাতে চাই।

হিউম্যান এইড এর মহাসচিব সেহলী পারভীন বলেন, আত্মহত্যায় বাংলাদেশ ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। তিনি উল্লেখ করে বলেন, বিশ্ব সাস্থ্য সংস্থা’র তথ্য মতে আত্মহত্যার র‌্যাংকিং এ বাংলাদেশ বিশ্বে ৩৮ তম দেশ। বিশ্বের মোট আত্মহত্যার শতকরা ৬০% শতাংশ সংঘটিত হয় এশিয়াতে আর এশিয়ার শতকরা ৪০% শতাংশ সংঘটিত হয় ভারত, চায়না ও জাপানে আর ভারতের অবস্থান বাংলাদেশের স্থলভাগের তিন দিকে। সুতরাং আমরা মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছি। কাজেই এখন থেকে আত্মহত্যার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নিলে বাংলদেশের অবস্থা লিথুনিয়া, দ: কোরিয়া, হাঙ্গেরী, শ্রীলংকা, রাশিয়া, জাপান, আমেরিকা ও চায়নার মত ভয়াবহ অবস্থান নিবে।

হিউম্যান এইড এর যুগ্ম মহাসচিব এ্যড. নাছির উদ্দিন বলেন, আত্মহত্যা প্রতিরোধ যোগ্য; কোন ধর্মীয় বিধানে আত্মহত্যা স্বীকৃত নয়, কাজেই ধর্মীয় অনুভূতি ও অনুশাসনকে কাজে লাগিয়ে সচেতনতা সৃষ্টি ও পরিবর্তিত মানষিকতা সৃষ্টির মাধ্যমে
আত্মহত্যার প্রবণতা রোধ করা সম্ভব। তিনি সকল মহলকে এর বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান। তিনি জানান ২০১৮ সাল থেকে (হিউম্যান এইড এন্ড ট্রাস্ট- ইন্টারন্যাশনাল) এন্টি সুইসাইড ক্যাম্পেইন প্রজেক্ট গবেষনা কাজ শুরু করে এবং অচিরেই দেশ ব্যাপি এ কর্মকান্ড ছড়িয়ে পরবে।

হিউম্যান এইড এর যুগ্ম মহাসচিব এ্যড. আবজাল হোসাইন মৃধা তার বক্তব্যে আত্মহত্যা প্রতিরোধে সরকারকে ন্যাশনাল সুইসাইড প্রিভেনশন পলিসি গ্রহন ও ফ্রেম ওয়ার্ক তৈরীর আহ্বান জানান। তিনি বে-সরকারী উন্নয়ন সংস্থা গুলিকে আত্মহত্যা প্রতিরোধে প্রকল্প গ্রহনে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান এবং গণ সচেতনতা সৃষ্টিতে মিডিয়াদেরকে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখারও আহ্বান জানান।

Comments are closed.

এই বিভাগের আরও খবর


Share via
Copy link
Powered by Social Snap