Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / অপরাধ / বরগুনার তালতলীতে কোষ্টগার্ডের হাতে ৪০০পিচ হাঙ্গর আটক

বরগুনার তালতলীতে কোষ্টগার্ডের হাতে ৪০০পিচ হাঙ্গর আটক

বরগুনা প্রতিনিধি: বরগুনার তালতলী উপজেলার আশারচরের বঙ্গোপসাগর সংলগ্ন পায়রা নদীর মোহনা থেকে বুধবার সন্ধার পর ৪০০ পিচ বিভিন্ন প্রজাতির হাঙ্গর মাছের বাচ্চা আটক করা হয়েছে। উপজেলা নিদ্রা সকিনা কোষ্টগার্ডের সদস্যরা ২টি মাছ ধরা ট্রলারে অভিযান চালিয়ে এ হাঙ্গর মাছ আটক করে।

জানা গেছে, উপজেলা নিদ্রা সকিনা কোষ্টগার্ডের পেটি অফিসার এম মর্তুজা আলীর নেতৃত্বে কোষ্টগার্ড সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে বঙ্গোপসাগর সংলগ্ন পায়রা নদীর মোহনা আশারচর এলাকা থেকে ৪০০পিচ নিষিদ্ধ হাঙ্গরের বাচ্চা আটক করে। যার প্রতিটি হাঙ্গরের ওজন আনুমানিক ১ থেকে দেড় কেজি। হাঙ্গর মাছ ধরা বন আইনে নিষিদ্ধ হওয়ায় এবং এতে বিষাক্ত জাতীয় পয়জন থাকায় এগুলো সকিনা কোষ্টগার্ড অফিসের পাশের একটি মাঠে কেরোসিন দিয়ে পুড়িয়ে মাটি চাপা দিয়ে রাখা হয়েছে। তালতলী উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা শামিম আহমেদ জানান, কোষ্টগার্ড সদস্যরা অভিযান চালিয়ে বঙ্গোপসাগর সংলগ্ন পায়রা নদীর মোহনা থেকে ৪০০পিচ নিষিদ্ধ হাঙ্গর আটক করেছে। এগুলোতে বিষক্ত জাতীয় পয়যন থাকায় জনসম্মুখে কেরোসিন দিয়ে মাটি চাপা দিয়ে রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সুন্দরবন ও তৎসংলগ্ন উপকুলীয় এলাকায় হাঙ্গর জাতীয় সব ধরনের মাছ ধরা বন আইনে সম্পুর্ন নিষিদ্ধ হলেও প্রতিদিন অসংখ্য হাঙ্গরের বাচ্চা ধরে সুটকি করা হচ্ছে। লেজ ও পাখনার মুল্য বেশি হওয়ায় এগুলো আলাদা করে সংগ্রহ করা হয়। আর প্রকাশ্যে রোদে শুকিয়ে সুটকি করাহয় মাছগুলোকে। ড্রামে সংগ্রহ করা হয় হাঙ্গরের চর্বি। যা দিয়ে তৈরি হয় মূল্যবান তেল।

মৎস্য বিশেষজ্ঞদের মতে প্রজননক্ষম হওয়ার আগেই এ মাছ শিকার করায় হুমকিতে পরবে এ প্রজাতির হাঙ্গর। বিশেষজ্ঞদের মতে, সমুদ্রে মাছের ভারসম্য রক্ষা করে হাঙ্গর। তাই এই প্রজাতিকে টিকিয়ে রাখা দরকার। এমন অবস্থা চলতে থাকলে সমুদ্রে মাছের ভারসম্য নষ্ট হবে বলে ধরনা করেন তারা। সারা পৃথিবীর সাগর ও নোনা পানিতে ১২ হাজার প্রজাতির হাঙ্গর পাওয়া যায়। তবে বাংলাদেশের সাগর ও নদী উপকূলে ৭১ প্রজাতির হাঙ্গর রয়েছে। সুন্দরবনের উপকুলে ১০ থেকে ১৫ প্রজাতির হাঙ্গরের বাচ্চা পাওয়া যাচ্ছে।

বরগুনার জেলা প্রশাসক মোকলেছুর রহমান বলেন, হাঙ্গর মাছ ধরা নিষিদ্ধ। এগুলো ধরে যারা সুটকি করে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments

comments