Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / মতামত / সহজ ভাষায় সহজ কথা

সহজ ভাষায় সহজ কথা

রাজ রিডার: কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারীর উপর দ্বিতীয় বারের মত হত্যার চেষ্টা করা হল। প্রথমবার গাড়ির চাকার নাট খুলে সিনেমা স্টাইলে হত্যার চেষ্টা করা হয়। সেবার তিনি অল্পের জন্য বেঁচে যান। অনেকে এই বিষয়টিকে অনেকটা সাধারণ দুর্ঘটনা বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছে। এই বিষয়টি অনেকটা ধামা চাপা দেয়া হয়েছে। কিংবা তদন্ত হলেও তেমন কোন অগ্রগতির কথা আর শোনা যায়নি। নিরাপত্তা সংশ্লিষ্টরাও যে খুব বেশি করেছেন বলে মনে হয় না। আর এইবার রামদা দিয়ে হামলা করা হল। এইবারও অনেকটা সোলে ছবির মত সামনে গাছ ফেলে রাস্তা অবরোধ করে দেয়া হয়। আর ভিসি নিজেও প্রথম আলোকে বলেন ‘এটা সংঘবদ্ধ দলের পরিকল্পিত অ্যাটাক (আক্রমণ)।’ এই ব্যাপারটি অনেকটা জনসাধারণের কাছেই স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। প্রফেসর ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী যখন থেকে উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন তখন থেকেই ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়কে একটি আন্তর্জাতিক মানের বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরিত করার জন্য সচেষ্ট হয়ে উঠেন। ফলশ্রুতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামোর ব্যাপক উন্নয়ন ঘটে। দিনের পর দিন ক্লাস বিমুখ অসাধু শিক্ষকেরা ক্লাসে ফিরে আসতে বাধ্য হয়। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অসৎ উপায়ে উপার্জনের পথ বন্ধ হয়ে আসে। সেশন জ্যাম কমে আসে। ছাত্রদের মধ্যে আবার প্রাণের সঞ্চার হয়। নতুন নতুন আধুনিক বিভাগ খোলা হয়। সহজ উপায়ে উচ্চতর ডিগ্রি বন্ধ হয়ে যায়। আর তাঁর চতুর্থ সমাবর্তনকে অনেকে মহাকাব্যিক সাফল্য হিসেবেই দেখছেন। তার ফলে যারা উপাচার্যের মত মহৎ দায়িত্বের পদটির দিকে শকুনের দৃষ্টিতে চেয়েছিল কিংবা এখনো হাবা-হাসমতের মত চেয়ে আছে তাদের অবস্থা অনেকটা এডাম-ইভের স্থলনকারী স্যাটানের মত হয়েছেঃ দেখে সহ্যও করতে পারছেনা, আবার না দেখেও পারছে না। তাই তাঁকে পথ থেকে একেবারে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। তিনি প্রথম আলোকে আরো বলেন ‘এ ঘটনায় আমি খুবই বিপর্যস্তবোধ করছি। নিরাপত্তাহীনতায় আছি। সরকারের কাছে আমি আমার নিরাপত্তা বাড়ানোর আবেদন জানাচ্ছি।’

একজন ভিসি যখন এইকথা বলেন তখন এই দায়িত্ব কার উপর বর্তায়ঃ দেশের উপর, জাতির উপর, প্রশাসনের উপর, নাকি বিবেকের উপর?

একজন আসকারীর শেষ মানে শুধু একজন ব্যক্তিত্যেরই শেষ নয়; হাজারো স্বপ্নের জন্য হুমকি যে স্বপ্ন ইবির শিক্ষার্থীরা দেখতে শুরু করেছে; হাজারো আদর্শিক মানুষের জন্য হুমকি যারা তাঁকে আইডল মেনে নিয়েছেন; ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের হাজারো বিহঙ্গের জন্য হুমকি যারা মুক্তভাবে আকাশে উড়তে চায়। আর আমাদের হারানোর ইতিহাস এতই ভীতিকর যে আমরা আর হারানোর ঝুঁকি নিতে প্রস্তুত নই।

যারা এই ঘৃণ্যচক্রান্তের সাথে জড়িত তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি যেন বেঁচে থাকে সততা, মুক্তচিন্তা, প্রগতিশীলতা।

Comments

comments