Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / অপরাধ / রাজধানীতে মেমোরি কার্ড বিক্রিতে চলছে প্রতারণা

রাজধানীতে মেমোরি কার্ড বিক্রিতে চলছে প্রতারণা

অনলাইন ডেস্ক: ‘১৬ জিবি মেমোরি কার্ড ২০০ টাকা, ৩২ জিবি মেমোরি কার্ড ৩০০ টাকা’- ডাকে সগরম রাজধানীর গুলিস্তান এলাকা। টেবিল বসিয়ে সাউন্ড বক্স লাগিয়ে মোবাইল ফোনের মেমরি কার্ড বিক্রিতে চটকদার কথা বলে যাচ্ছে হকাররা।

যেখানে অরজিনাল মেমোরি কার্ড মার্কেটে ৬০০-৮০০ টাকা। সেখানে কম দামে পাওয়ায় গ্রাহক লুফে নিচ্ছে এসকল মেমোরি কার্ড। কিন্তু এসকল ৩২ জিবি বা ১৬ জিবি মেমোরি কার্ড আসলে ২ জিবি বা ৪ জিবি। আবার ভাইরাস থাকার সম্ভবনা ৯০%। নিম্নমানের এসব মেমোরি কার্ড দ্রুতই নষ্ট হয়ে যায়।

বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দীন আহমেদ মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) বিকেলে এক বিবৃতিতে একথাই জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে মহিউদ্দীন আহমেদ বলেন, বর্তমানে এক্সেসরিজ বাজার প্রায় সাড়ে চার হাজার কোটি টাকার। কিন্তু এক্সেসরিজ আমদানি বা বাজারজাত করার জন্য আজ পর্যন্ত কোন নীতিমালা তৈরি না হওয়ায় রাষ্ট্র এ খাত থেকে যেমন বিপুল পরিমাণ রাজস্ব হারাচ্ছে, তেমনি এ খাতের গ্রাহকগণ নিম্নমানের এক্সেসরিজ ক্রয় করে হচ্ছেন প্রতারিত।

তিনি বলেন, এ সকল এক্সেসরিজ এর মধ্যে মুঠোফোন ব্যবহারকারীদের জন্য অতিপ্রয়োজনীয় একটি পণ্যের নাম মেমোরি কার্ড। মেমোরিকার্ডের মাধ্যমে তথ্য ধারণ ও বহন করা যায়। এটি আকারে ছোট ও হালকা হওয়ায় এ পণ্যটি শুরু থেকে আজ পর্যন্ত যার মোট চাহিদা ২০ কোটি পিস যা সম্পূর্ণই অবৈধভাবে বিদেশ থেকে আসে। যার বেশিরভাগ ভারত ও চীন থেকে আসে।

রাজধানীতে বিভিন্ন এলাকায় মেমোরিকার্ড বিক্রি বিষয়ে মহিউদ্দীন আহমেদ বলেন, গত দুই মাস ধরে আমরা লক্ষ্য করছি রাজধানীর গুলিস্তান এলাকায় প্রতি ৫ গজ অন্তর অন্তর টেবিল বসিয়ে সাউন্ড বক্স লাগিয়ে চটকদার কথা বলে যাচ্ছে হকাররা। ৩২ জিবি মেমোরি কার্ড ৩০০ টাকা, ১৬ জিবি মেমোরি কার্ড ২০০ টাকা ডাকে সগরম গুলিস্তান এলাকা। এ রকম সারা ঢাকায় প্রায় ১০০০ হকার হাকডাক হাকিয়ে বিক্রি করে যাচ্ছে। অরজিনাল মেমোরি কার্ড মার্কেটে ৬০০-৮০০ টাকা। সেখানে কম দামে পাওয়ায় গ্রাহক লুফে নিচ্ছে এসকল মেমোরি কার্ড।

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, আমাদের অনুসন্ধান টিম সরজমিনে অনুসন্ধান করে দেখতে পায়, এসকল ৩২ জিবি বা ১৬ জিবি মেমোরি কার্ড আসলে ২ জিবি বা ৪ জিবি। আবার ভাইরাস থাকার সম্ভবনা ৯০%। নিম্নমানের এসব মেমোরি কার্ড দ্রুতই নষ্ট হয়ে যায়। এসব হকাররা গুলিস্তানের সুন্দরবন মার্কেট বা পাতাল মার্কেট থেকে ৭০-৮০ টাকায় এসব মেমোরি কার্ড কিনে বিক্রি করছে। কেনার পর প্রতারিত হয়ে ক্রেতারা এ মেমোরি কার্ড ফেরত দিতে গেলে হকাররা তো ফেরত নেয় না। উল্টো সংঘবদ্ধ হকার চক্রের দ্বারা গ্রাহকদের লাঞ্ছিত হতে হয় বলে দাবি সংগঠনটির।

এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষে উদাসীনতা ও গ্রাহকদের অসচেতনতার ফলে দিনের পর দিন চলছে এই প্রতারণা। এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা ও গ্রাহকদের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করা প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি।

Comments

comments